রেল সেবা


     Rail Sheba - ‘রেল সেবা’ অ্যাপ ব্যবহার করে টিকিট কাটার জন্য যাত্রীকে তার পছন্দনুযায়ী যাত্রা শুরুর স্টেশন, গন্তব্য স্টেশন, পছন্দানুযায়ী ট্রেনের ক্লাস ও যাত্রার তারিখ সিলেক্ট করতে হবে। একইসঙ্গে ‘ট্রেন ডিটেইলস থেকে সহজেই ট্রেনের বিস্তারিত তথ্য দেখতে পারবেন। তারপর অ্যাভেইলেবল ট্রেন থেকে পছন্দমতো বগি এবং সিট সিলেক্ট করে অনলাইন পেমেন্টের (ডেবিট/ ক্রেডিট কার্ড অথবা এমএফএস) মাধ্যমে টিকিট কেটে ফেলতে পারবেন।

     

    এর মাধ্যমে ই-টিকিট যাত্রীর রেজিস্টার করা ই-মেইলে সেন্ড হয়ে যাবে। একইসঙ্গে যাত্রী ই-টিকিট অ্যাপ থেকে নিজের সুবিধামতো ডাউনলোড করে নিতে পারবে। যাত্রীদের সুবিধার কথা চিন্তা করে ‘রেল সেবা অ্যাপের নেভিগেশন বারে সংযুক্ত করা হয়েছে বিভিন্ন ফিচার। ‘ভ্যারিফাই টিকিট ট্যাব থেকে সহজেই টিকিট ভ্যারিফাই করার সুবিধা রয়েছে। এছাড়াও ‘মাই টিকিটস এর মাধ্যমে ৭ দিন পর্যন্ত পুরোনো ও আসন্ন ট্রিপ ডিটেইলস দেখা যাবে। যাত্রীরা প্রয়োজনে ‘মাই অ্যাকাউন্টস ট্যাবের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশনের সময় নিজের দেওয়া তথ্য, পাসওয়ার্ড আপডেট করে নিতে পারবেন।


    বিস্তারিত জানতে Google News অনুসরণ করুন

     

    সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মো. হুমায়ুন কবীর, রেলওয়ের মহাপরিচালক ধীরেন্দ্র নাথ মজুমদার প্রমুখ।

      

    Rail Sheba - রেল সেবাঃ একটি সম্পূর্ণ আনঅফিশিয়াল ট্রেন টিকিট অ্যাপ।

     

    কি ভাবে ট্রেনের টিকিট কেনবেন

     

    টিকিট পাওয়ার জন্য আর লাইনে দাঁড়িয়ে সময় নষ্ট করতে হবে না। অনলাইনে টিকিট কেনার জন্য এই পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করুন:

     

    1. এই অ্যাপটি ডাউনলোড করুন

    2. আপনার ওয়েব অ্যাফিলিয়েশন সক্রিয় করুন

    3. আপনার প্রিয় দিন, ট্রেন, এবং মূল্য ট্যাগ ধরনের চয়েজ করুন.

    4. লগইন করুন

    5. শেষ পেমেন্ট।

     

    অর্থপ্রদানের উন্নতির পরে, আপনি শীঘ্রই একটি সহযোগী ইমেল পাবেন। এই ইমেলটি প্রিন্ট করুন এবং মূল্য ট্যাগ পাওয়ার পরে এটি আপনার সাথে স্টেশনে নিয়ে যান।

     

    ট্রেনের টিকিট যাচাই

     

    আপনি শুধুমাত্র পরবর্তী পদক্ষেপের মাধ্যমে আপনার টিকিট যাচাই করতে পারেন:

     

    1. মোবাইল বৈচিত্র্য

    2. পিএনআর/টিকিটের বৈচিত্র্য


    আরও পড়ুন >> আপনার স্মার্টফোন কিভাবে দ্রুত চার্জ করবেন

     

    সহজে নতুন পদ্ধতিতে যাত্রীরা বাংলাদেশ রেলওয়ের অনলাইন টিকিট কিনতে পারবেন। নতুন পদ্ধতিটি CNSBD-এর আগের পদ্ধতির সাথে প্রায় অভিন্ন এবং সামঞ্জস্যপূর্ণ। একটি সম্পূর্ণ নতুন ওয়েব সাইট, একটি একেবারে নতুন সিট পছন্দ সিস্টেমের মতো প্রাপ্ত সিস্টেমে খুব সামান্য পরিবর্তন রয়েছে এবং বর্তমান ব্যক্তিরা নতুন সমন্বিত অনলাইন ট্রেনের টিকিট দেখতে প্রস্তুত হবে। সুতরাং, এখান থেকে মূল্য ট্যাগ কেনা উচিত।

     

    সম্পূর্ণ অর্থপ্রদানের পরে আপনি আপনার ইমেল এবং রেলওয়ে অ্যাকাউন্ট ড্যাশবোর্ডে আধা ঘন্টার ব্যবধানে আপনার মূল্য ট্যাগ পাবেন।

     

    N.B: বাংলাদেশ রেলওয়ে ই-টিকিট অ্যাকাউন্ট না থাকলেও আপনি এটি কেনার জন্য প্রস্তুত হতে পারবেন না। সুতরাং, নীচের মধ্যে, আপনি একযোগে নিবন্ধন পদ্ধতি প্রদান করছেন।

     

    বাংলাদেশ রেলওয়ের সেন্ট্রালি প্রসেসড সিট রিজার্ভেশন অ্যান্ড টিকিটিং সিস্টেম (CCSRTS) এবং Shohoz-Synesis-Vincen JV দ্বারা জারি করা টিকিট বর্গ পরিমাপ সিস্টেমের পরিকল্পনা, উন্নয়ন, বাস্তবায়ন, প্রযুক্তিগত অপারেশন এবং রক্ষণাবেক্ষণের জন্য চার্জযোগ্য।

     

    এই অনলাইন ই-টিকিট অ্যাপস এর মাধ্যমে বাংলাদেশ রেলওয়ের ট্রেনের ই-টিকেট অনলাইনে কাটতে পারবেন খুব সহজে। টিকিট ডাউনলোড, সিট সিলেক্ট ইত্যাদি করা যাবে আরো সহজে। কোনো সমস্যা ছাড়া টিকিট কিনতে পারবেন।

     

    ট্রেনের টিকিট কেনার এবং ট্রেনের অবস্থান ট্র্যাক করার সবচেয়ে সহজ উপায়। ব্যবহারকারীকে তাদের মাস্টার কার্ড, ভিসা কার্ড, বিকাশ এবং প্রচুর অতিরিক্ত অর্থপ্রদানের বিকল্প দিয়ে টিকিট কেনা উচিত।

     

    Version - 2.0

    Updated on - May 22, 2022

    Downloads - 5,000+ downloads

    Released on - Apr 29, 2022

    Offered by - Rex Production

    Post a Comment

    Please do not enter any spam link in the comment box.

    Previous Post Next Post